সিটি কর্পোরেশন

  

এক নজরে রাজশাহী

ইতিহাস:
রাজশাহী বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের (উত্তরবঙ্গের) একটি প্রধান শহর | এটি রাজশাহী বিভাগ এর রাজশাহী জেলার অন্তর্গত । রাজশাহী শহর বিখ্যাত পদ্মানদীর তীরে অবস্থিত। এটি রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় শহর। রাজশাহী শহরের নিকটে প্রাচীন বাংলার বেশ কয়েকটি রাজধানী শহর অবস্থিত। এদের মাঝে লক্ষণৌতি বা লক্ষনাবতি, পুন্ড্র ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। রাজশাহী তার আকর্ষণীয় রেশমীবস্ত্র (Silk), আম, লিচু এবং মিস্টান্নসামগ্রীর জন্য প্রসিদ্ধ। রেশমীবস্ত্রের কারণে রাজশাহীকে রেশমনগরী (Silk City) নামে ডাকা হয়। রাজশাহী শহরে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে যাদের অনেকগুলির খ্যাতি দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। নামকরা এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য রাজশাহী শহর শিক্ষানগরী নামেও পরিচিত। রাজশাহী শহরে এবং এর আশেপাশে বেশ কিছু বিখ্যাত ও ঐতিহাসিক মসজিদ, মন্দির ও উপাসনালয় রয়েছে।



জলবায়ু:
বাংলাদেশের অবস্থান ক্রান্তীয় অঞ্চলে বলে এখানকার আবহাওয়া নাতিশীতোষ্ণ।
মহানগরের গড় তাপমাত্রা = ২৩.৮৩ সে :(১৯৯১-১৯৯৬)
মহানগরের বাষির্ক বৃষ্টিপাত = ১৪৪৭.৬মি.মি.(১৯৯৬-২০০১)
বাষির্ক গড় আদ্রতা = ৭৬% (২০০১)


ভৌগলিক তথ্য:
আয়তন ‍ঃ ২৪-০৫', ২৫-১৪' উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮-০১' হতে ৮৯-২৫' পূর্ব পর্যন্ত বিস্তৃত।
আয়তন ‍ঃ (রাসিক এলাকা) = ৯৬.৭২ বর্গ কিলোমিটার।
সীমানা ‍ঃ প্রমত্তা পদ্মার উত্তর ধার ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকা রাজশাহী মহনগরীর চতুপার্শ বেড়া দিয়ে আছে রাজশাহী জেলার পবা থানা। উত্তরে: মৌজা হড়গ্রাম জে এল নং ৪৩, মৌজা সড়কগ্রাম জে এল নং ১০৯, মৌজা মেহেরচন্ডি জে এল নং ১২০।
দক্ষিণে: পদ্মা নদী । পূর্বে : মৌজা বুধপাড়া জে এল নং ১২৫, মৌজা মিজার্পুর জে এল নং ১১৯, মৌজা ডাঁশমারী জে এল নং ১৯৪। পশ্চিমে : মৌজা গোয়ালপাড়া জে এল নং ৪২, মৌজা হাড়ুপুর (আংশিক) জে এল নং ২১৬।
  

বিজ্ঞাপন

.