logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo কাঁটাখালিতে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে মেয়র/ অবহেলিত রাজশাহীর উন্নয়নে গ্যাস ও বিদ্যুতের কোন বিকল্প নেই
অবহেলিত রাজশাহীর উন্নয়নে গ্যাস এবং বিদ্যুতের কোন বিকল্প নেই। কেননা বিদ্যুৎ না হলে শিল্পায়নসহ ব্যবসা বাণিজ্যের সমপ্রসারণ ঘটবে না। রাজশাহী মহানগরীর কাঁটাখালিতে ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে সিটি মেয়র এএইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এই বিদ্যুৎ প্ল্লান্ট স’াপনে উদ্যোগ গ্রহণ করি এবং তা সরকার অনুমোদন করায় এটি নির্মিত হচ্ছে। এর নির্মাণ কাজ শেষ হলে এ অঞ্চলের বিদ্যুৎ সংকট দূরীভূত হবে। ফলে শিল্পায়নসহ ব্যবসা বাণিজ্যের সমপ্রসারণ ঘটবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্ল্লিষ্টদের আহবান জানিয়ে মেয়র বলেন, এখানে আরো একটি প্ল্লান্ট নির্মাণের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আশা করা যায়, খুব শীঘ্রই সেটিরও নির্মাণ কাজ শুরু হবে।
তিনি বলেন, এ অঞ্চলের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে। এখানকার মানুষের প্রত্যাশা, উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প বাস-বায়ন, পদ্মা নদী ড্রেজিং এবং প্রাকৃতিক গ্যাসের বাণিজ্যিক ব্যবহার বাস-বায়ন করার জন্য আমার প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।
এ সময় উপসি’ত ছিলেন সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী আমজাদ হোসেন, প্রকল্পের পরিচালক প্রকৌশলী সাব্বির সুলতানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। তারা বলেন, অবহেলার অংশ হিসেবে রাজশাহী, নাটোর, নওগা, বাগমারাসহ উত্তর বঙ্গের কোথাও কোন পাওয়ার প্লান্ট ছিল না। আর সে কারণে রাজশাহী বিভাগসহ গোটা উত্তর বঙ্গে কোন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি গড়ে উঠেনি। অথচ একটি দেশের উন্নয়নে গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। কেননা এতে জনগণের আয়ের উৎস বেড়ে যাবে। আর রাজশাহীসহ উত্তর বঙ্গের মানুষের জন্য শুধু এই ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যথেষ্ট নয়। তাই তারা অতি দ্রুত আরো ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের দাবি জানান।
উল্ল্লেখ্য আগামী ২০১১ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যেই এটি নির্মাণ কাজ শেষ হবে। এটি নির্মাণে ব্যয় হবে প্রায় ৫০ কোটি টাকা। নর্দান পাওয়ার সলিউশন নামক এ প্রকল্পটি বাস-বায়ন করছে এনা প্রপার্টিজ।(সূএ:সোনালী সংবাদ)

পাতাটি ২৩৭ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন