logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo তীব্র যানজটের শহর রাজশাহী
রমজানের মধ্যভাগে তীব্র যানজটের কবলে পড়ে নাকাল রাজশাহী মহানগরবাসী। শহরের প্রধান সড়ক থেকে শুরু করে সংযোগ সড়কগুলোতেও দিন দিন যানজট বাড়ছেই। ঈদকে সামনে রেখে সমস্যা আরও প্রকট আকার ধারণ করেছে। সেই সঙ্গে গ্যাসের পাইপলাইন বসানোর কাজ চলমান থাকায় নগরীর গুরুত্বপূর্ণ অনেক সড়কে স্বাভাবিক যানবাহন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এতে মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা লোকজন দুর্ভোগের মধ্যে পড়ছেন। এর সঙ্গে আবার নতুন করে যোগ হয়েছে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল ও ফুটপাত দখলের ঝামেলা। বেলা ১০টা থেকে সন্ধ্যার আগ পর্যন্ত নগরীর ব্যস্ততম সড়কগুলোতে সৃষ্ট যানজটে নাকাল হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। বিশেষ করে ইফতারের আগে নগরীর সাহেব বাজারের সংযোগ সড়কগুলোতে অতিরিক্ত যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার ছুটির দিনেও নগরীতে তীব্র যানজট দেখা দিয়েছে। নগরীর প্রধান প্রধান বিপনি বিতান কেন্দ্রগুলোর সামনে এ অবস্থা আরও প্রকট। বিশেষ করে আলুপট্টি থেকে মরিচত্বর, জিরো পয়েন্ট থেকে রেলগেট পর্যন্ত রাস্তায় চলাচলকারীরা সকাল থেকেই দুর্ভোগের মধ্যে পড়েন। যানজটের মূল কারণই ছিল অত্যধিক রিকশা ও অটোরিকশার চলাচল। যাদের নিয়ন্ত্রণ করতে ট্রাফিক পুলিশকেও হিমশিম খেতে দেখা যায়। ঈদের কেনাকাটাকে কেন্দ্র করে এবার রমজানের শুরু থেকে নগরীতে লোক চলাচল বেড়ে যাওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
�রিকশানগরী� হিসেবে খ্যাত রাজশাহীতে এবার যুক্ত হয়েছে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা। এরই মধ্যে নগরীতে অনেক আধুনিক মার্কেট ও বিপণি বিতান গড়ে উঠেছে। কিন্তু সেগুলোতে গাড়ি পার্কিংয়ের কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়নি। বিভিন্ন মার্কেটের সামনে রাস্তার ওপরেই বিশৃঙ্খলভাবে জিপ, কারসহ অন্য যানবাহন রাখায় যানজট সবসময় লেগেই থাকছে। এর যেন প্রতিকার নেই। গতকাল সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট ও মনিচত্বর এলাকায় দুপুর ১২দিকে প্রচণ্ড যানজটের সৃষ্টি হয়। দীর্ঘ আধাঘণ্টা পর ট্রাফিক পুলিশ যানজট নিরসন করলে স্বাভাবিক যান চলাচল করে।
এ সময় অনেককেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে দেখা গেছে।

পাতাটি ২৮২ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন