logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রোগীর স্বজন-চিকিত্সক হাতাহাতি, ধর্মঘট
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিত্সকদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থতার অভিযোগ এনে পরিচালকের অপসারণসহ চার দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছেন শিক্ষানবিশ চিকিত্সকেরা। গতকাল সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে এই ধর্মঘটের ঘোষণা দেওয়া হয়।
ধর্মঘটের কারণে রোগীরা ভোগান্তিতে পড়েছেন। অনেক রোগী বেসরকারি হাসপাতালে যেতে বাধ্য হচ্ছেন।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত রোববার রাতে হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও একজন চিকিত্সকের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে শিক্ষানবিশ চিকিত্সকেরা এতে জড়িয়ে পড়েন। প্রতিবাদে রাত থেকেই ধর্মঘট শুরু করে শিক্ষানবিশ চিকিত্সক পরিষদ।
গতকাল দুপুরে হাসপাতালের ডক্টরস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষানবিশ চিকিত্সকেরা তাঁদের চার দফা দাবি তুলে ধরেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন ফাহাদ আল মামুন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শিক্ষানবিশ চিকিত্সক পরিষদের সভাপতি ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম সিদ্দিকী ৮ নম্বর ওয়ার্ডে দায়িত্ব পালন করছিলেন। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আবদুল হক (৫৫) নামের একজন রোগীকে ওই ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। তাঁর স্বজনেরা কোনো চিকিত্সক খুঁজে পাচ্ছিলেন না। এ ঘটনায় রোগীর স্বজন মো. ফিরোজ উত্তেজিত হয়ে শাহ আলম সিদ্দিকীর সঙ্গে বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে হাতাহাতি হয়।

পাতাটি ২৭১ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন