logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo অবশেষে রহমতের বৃষ্টি
প্রায় ৯ দিন প্রচণ্ড তাপদাহ ছড়ানোর পর গতকাল শনিবার বিকেলে রাজশাহী ও এর পাশ্ববর্তী এলাকাগুলোতে বৃষ্টির দেখা মিলেছে। নগরীতে ঝঝের দেখা না মিললেও বিভিন্ন উপজেলায় ঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টি হয়েছে। কোথাও শুধু ঝড় হয়েছে, বৃষ্টি হয় নি। এতে বোরো ধান, আম, পেঁপে, ভুট্টাসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্নস’ানে হাটবাজার ও বসতবাড়ির ক্ষতি হয়েছে। বিদ্যুতের খুঁটি উপড়িয়ে পড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে অনেক এলাকায়। তাৎক্ষণিক ভাবে ক্ষতির পরিমাণ নিরূপন করা না গেলেও বাগমারায় দুজন শিশু আহত হবার খবর পাওয়া গেছে।
গত কয়েকদিন ধরে নগরীতে তিব্র তাপদহের পর গতকাল বিকেলে শিলাবৃষ্টির ফলে কিছুটা স্বসি- নেমে আসে নগরীতে। গতকালও বিকেল পর্যন- তাপমাত্রা ছিল অসহনীয়। বিকেলের দিকে আকাশে মেঘ জমতে থাকে। সাড়ে ৬টার দিকে মেঘের গর্জনের সাথে বৃষ্টি পড়তে থাকে। বৃষ্টির সাথে শিলা পড়েছে বিভিন্ন স’ানে। কখনও ধীর গতিতে আবার কখনও জোরে সোরে শুরু হওয়া বৃষ্টির মেয়াদ ছিল মিনিট পঞ্চাশেক স’ানীয় আবহাওয়া দপ্তর জানায় ১৪.২ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে রাজশাহীতে। এর আগে ২ বৈশাখে বৃষ্টি হয়েছিল ২০ মিলিমিটার।
অন্যদিনের মতো গতকালও একপর্যায়ে রাজশাহীতে তাপমাত্রা বেড়ে দাঁড়ায় ৩৯ ডিগ্রীতে। তবে বৃষ্টির পর রাতে তাপমাত্রা কমে যায়। রাত ৯টায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ২৪.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

পাতাটি ২৮১ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন