logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo ইসলামে জঙ্গিবাদের কোনো জায়গা নেই
রাজশাহীর বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও ধর্মীয় নেতারা বলেছেন, ইসলামে জঙ্গিবাদের কোনো জায়গা নেই। পুলিশ পাশে থাকলে তাঁরা নির্ভয়ে জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে ভূমিকা রাখতে পারবেন। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে গতকাল শনিবার সকালে রাজশাহী পুলিশ লাইনের দাঙ্গা দমন বিভাগ মিলনায়তনে মতবিনিময় সভায় ইমামেরা এ কথা বলেন। ইমাম ও অন্যান্য ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে রাজশাহী মহানগর পুলিশ।
ইমাম সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি শহীদুল ইসলাম বলেন, সমাজ থেকে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে ইমাম ও পুলিশকেই দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। তবে জঙ্গি দমনের নামে দাড়ি-টুপি পরা সব মানুষকে হয়রানি না করার অনুরোধ জানান তিনি। তিনি বলেন, চিহ্নিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিতে হবে।
রাজশাহী পোস্টাল একাডেমি জামে মসজিদের ইমাম আবদুল কাদের বলেন, ইসলামে জঙ্গিবাদের কোনো জায়গা নেই। হাত-পা তো দূরের কথা, জবান দিয়েও এক মুসলমান আরেক মুসলমানকে কষ্ট দিতে পারেন না।
নগরের রাজারহাতা জামে মসজিদের ইমাম কাওসার হোসাইন বলেন, ‘নসিহত করতে বলা হয়েছে উত্তমভাবে, উগ্রভাবে নয়। আমরা ইমাম এবং পুলিশ একসঙ্গে কাজ করে সমাজ থেকে এই অনাচার দূর করতে পারি।’
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের শিক্ষক আবদুস সালাম আল মাদানী বলেন, ‘জাতির পিঠ যখনই দেয়ালে ঠেকে, তখনই ইমাম ও ধর্মীয় নেতাদের ডাক পড়ে।’ ১৭ আগস্টের বোমা হামলার পর ইমামেরা যেভাবে ভূমিকা রেখেছিলেন, সেভাবেই জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি। কেউ যেন পবিত্র কোরআনের অপব্যাখ্যা না করে, সেদিকেও খেয়াল রাখতে পুলিশ কমিশনার নওশের আলী ইমামদের প্রতি অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, প্রায়ই দেখা গেছে, দরিদ্র পরিবারের ছেলেদের বেহেশতের কথা বলে জঙ্গিবাদ ছড়াতে ব্যবহার করা হয়েছে।
সভায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন রাজশাহীর সহকারী পরিচালক সুলতান আহাম্মেদ, পবার নওহাটা মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ আবদুল মতিন, শিরোইল আহলে হাদিস জামে মসজিদের ইমাম ইলিয়াস আলীসহ রাজশাহী শহর ও পাশের এলাকার মসজিদের ২০০ জনের মতো ইমাম উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপপুলিশ কমিশনার (সদর) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন মাতুব্বর, উপপুলিশ কমিশনার (পশ্চিম) মো. সাজ্জাদুর রহমানসহ পুলিশের অন্য কর্মকর্তারা।

পাতাটি ২৭৫ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন