logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রাজশাহী কলেজে স্নাতক সম্মান শ্রেণীতে ভর্তি
রাজশাহী কলেজে ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষে ২০টি বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।
ফরম বিতরণ: ১৩ থেকে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত (সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত) প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা দুইটা পর্যন্ত রূপালী ব্যাংক, কলেজ শাখায় ফরম বিতরণ চলবে। একই সময় কলেজের লাইব্রেরি ভবনের পূর্ব দিকের বারান্দায় ফরম জমা নেওয়া হবে ১৫ থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত।
অনার্সের বিষয় ও আসনসংখ্যা: কলা অনুষদ: বাংলায় ১৮০টি, ইংরেজিতে ১৯৫, আরবি ও ইসলামী শিক্ষায় ৮০, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে ২৩৫, ইতিহাসে ২৩৫, দর্শনে ১৯০, অর্থনীতিতে ২৩৫, রাষ্ট্রবিজ্ঞানে ২৩৫, সমাজবিজ্ঞানে ২৩৫ ও সমাজকর্মে ১৫০টি।
বিজ্ঞান অনুষদ: পদার্থবিদ্যায় ১০০টি, রসায়নে ১০০, গণিতে ১৮০, পরিসংখ্যানে ১১০, প্রাণিবিদ্যায় ১৩০, উদ্ভিদবিদ্যায় ১৩০, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যায় ১৩০ ও মনোবিজ্ঞানে ১৩৫টি।
ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ: হিসাববিজ্ঞানে ২৩৫টি ও ব্যবস্থাপনায় ২৩৫টি।
ভর্তির আবেদন ফরম পূরণের যোগ্যতা: ক. শুধু ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে শর্ত থাকে যে,
১. ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে উচ্চমাধ্যমিক পাস প্রার্থীকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয় ছাড়া ন্যূনতম জিপিএ-২ পেতে হবে। অর্থাত্ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ-৪ থাকতে হবে।
২. যে বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি হতে ইচ্ছুক, সে বিষয়ে অথবা অনুমোদিত সমগোত্রীয় বিষয়ে প্রার্থীকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ-৩ পেতে হবে।
৩. যে বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি হতে ইচ্ছুক, সে বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে পড়ে থাকলে প্রার্থীকে ওই বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট-৩ থাকতে হবে। সে ক্ষেত্রে অন্য কোনো বিষয়কে সমগোত্রীয় বিষয় হিসেবে গণ্য করা যাবে না।
৪. মানোন্নয়ন পরীক্ষার্থী অথবা এক বিষয়ের পরীক্ষার্থী হিসেবে ২০০৮ সালে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় পাস করে থাকলে প্রার্থীকে উচ্চমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম সি গ্রেড অথবা জিপিএ-২ পেতে হবে।
৫. কোনো প্রার্থী উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণীতে কৃষিবিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যয়ন করে থাকলে, তিনি যে গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ হয়েছেন, তাঁকে ওই গ্রুপের নির্ধারিত আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে।
খ. বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় যেসব শিক্ষার্থী ২০০৮-০৯ সালে ন্যূনতম জিপিএ-২ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন, তাঁরাও ভর্তি পরীক্ষায় অন্যান্য শর্ত সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন।
গ. ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম পাস শিক্ষার্থীরা জিপিএ-২ থাকলে অন্যান্য শর্ত সাপেক্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন।
ঘ. মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম পাস শিক্ষার্থী, যাঁরা বিজ্ঞান বিভাগ থেকে পাস করেছেন, তাঁরাও অন্যান্য শর্ত সাপেক্ষে স্নাতক, স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।
ঙ. বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ব্যবসায় শিক্ষা শাখার ফরম পূরণ করতে হবে এবং ডিপ্লোমা ইন ফরেস্ট্রি, ডিপ্লোমা ইন অ্যাগ্রিকালচার, ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পাস করা শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান শাখার ফরম পূরণ করতে হবে।
চ. ও লেভেল পরীক্ষায় অন্তত চারটি বিষয়ে এবং শুধু ২০০৮-০৯ সালে এ লেভেল পরীক্ষায় অন্তত দুটি বিষয়ে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে তাঁদের ও লেভেল এবং এ লেভেল পরীক্ষায় মোট ছয়টি বিষয়ের মধ্যে কমপক্ষে চারটি বিষয়ে বি গ্রেড এবং দুটি বিষয়ে সি গ্রেড পেতে হবে।
ছ. বিদেশ থেকে পাওয়া ডিগ্রি/ডিপ্লোমা/সার্টিফিকেট সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড/কর্তৃপক্ষ কর্তৃক উচ্চমাধ্যমিকের সমতুল্য নিরূপিত হলে প্রার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। তবে শর্ত থাকে যে এ ধরনের সমতা নিরূপণের সনদপত্র ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফরম সংগ্রহের সময় প্রদর্শন করতে হবে এবং আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে। অন্যথায় তাঁদের আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।
জ. কোনো প্রার্থী এক হাজারের বেশি নম্বরের মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় পাস করে থাকলে তাঁর প্রাপ্ত মোট নম্বরের এক হাজার স্কেল গণনা করে নির্ধারিত ফরম পূরণ করতে হবে। সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করবে। অন্যথায় তাঁদের আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।
ঝ. আবেদনকারী উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় যে শাখায় উত্তীর্ণ হয়েছেন, সে শাখার নির্ধারিত আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে।
বি. দ্র.: ৩১ ডিসেম্বর তারিখে সব স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি হতে ইচ্ছুক আবেদনকারী ছাত্রছাত্রীর সর্বোচ্চ বয়স ২২ বছরের বেশি হবে না। বয়স প্রমাণের জন্য এসএসসি বা সমমানের সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি আবেদনপত্রের সঙ্গে অবশ্যই সংযোজন করতে হবে। বয়সের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কলেজ কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করবে। অন্যথায় আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।
জেনে রাখুন: ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফরম এসআইএর ভর্তি নির্দেশিকার ফি ২৫০ টাকা এবং প্রসপেক্টাস বাবদ ২০ টাকাসহ ২৭০ টাকা।
# ভর্তি পরীক্ষার তারিখ: ১৫ জানুয়ারি শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত।
# এসএসসি ও এইচএসসির নম্বরপত্রের দুই কপি সত্যায়িত ফটোকপি আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযোজন করতে হবে এবং তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি আবেদনপত্রের নির্ধারিত স্থানে লাগাতে হবে। যোগাযোগ: সহযোগী অধ্যাপক মো. রুহুল আমিন, সদস্য, ভর্তি কমিটি। মোবাইল: ০১৭১১০৭৫৪২২।

পাতাটি ২৯৮ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন