logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo ইসলামী দাওয়াতের নামে রাজনীতি চাঙ্গার চেষ্টায় নেমেছে জামায়াত
রাজশাহীর তানোরে এবার ইসলামী জালসা ও দাওয়াতের নামে তৎপর হয়েছে যুদ্ধপরাধী রাজনৈতিক দল হিসেবে বহুল আলোচিত ও সমালোচিত বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী।

নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মনোবল চাঙ্গা করতে এই মৌসুমকে টার্গেট করে শুরু করা হয়েছে এই গণসংযোগ কার্যক্রম বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেছে। বিগত ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াতের সর্বাত্নক ভরাডুবি, বিএনপি’র সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি, যুদ্ধপরাধীদের বিচার পক্রিয়া শুরুর সরকারী ঘোষণা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবিরের হত্যাযজ্ঞ, দেশব্যাপী বিছিন্নভাবে যুদ্ধপরাধীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ নানা কারণে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি এখন চরম হুমকির মূখোমূখি হয়ে পড়েছে।

অন্যদিকে জামায়াতের এমন কর্মকান্ড নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
জানা গেছে, এসব কারণে এই অঞ্চলের জামায়াতে ইসলামীর অধিকাংশ দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকরা জনরোষের আতংকে ভুকছেন, অনেকেই আত্নগোপনে এবং রাজনৈতিকভাবে দলের সবাই দারুণ অস্বসি-র মাঝে রয়েছেন। এ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স'ানে জামায়াতের রাজনীতির প্রতি এখন অনেকেরই অনীহা দেখা দিয়েছে। এ অবস'ায় জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে মনোবল সংকট প্রকট আকার ধারন করেছে। এ বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেতেই ইসলামী দাওয়াত কর্মসূচি নিয়ে জামায়াত নেতাকর্মীরা মাঠে নেমেছেন এবং পাশাপাশি বিভিন্ন ইসলামী জালসায় যোগদিয়ে রাজনৈতিক প্রচারণা করছে বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেছেন।

সুত্র আরো জানায়, বিশেষ করে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ভংগুর মনোবল ফিরিয়ে আনার জন্য এমন গণসংযোগ অপরিহার্য হয়ে পড়ে। জামায়াতে ইসলামী এখন সরকারের সমালোচনা করার চেয়ে নিজেদের নেতাকর্মীদের মনোবল ফিরিয়ে আনার প্রতিই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। দেশের পরিবর্তিত রাজনৈতিক পরিসি'তিতে নিজেদের রাজনৈতিক অবস'ান ধরে রাখতেই তারা অধিক মনোযোগী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পৌর নেতা বলেন, ঘরে ঘরে ইসলামী দাওয়াত পৌচ্ছে দেয়ার জন্যই এই গণসংযোগ। প্রতিবছরই গণসংযোগের কাজ হয় এবং এটা রুটিন ওয়ার্ক। তবে এব্যাপারে জামায়াত-শিবিরের দায়িত্বশীল কোন ব্যক্তির কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পাতাটি ৩০৩ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন