logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রাজশাহীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ
রাজশাহীর হোটেল রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির নেতারা অভিযোগ করেছেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের নামে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁদের হয়রানি করা হচ্ছে। সামান্য অজুহাতে বিপুল অঙ্কের টাকা জরিমানা করে তাঁদের অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে।

এ ঘটনাকে তাঁরা 'চাঁদাবাজি' বলে উল্লেখ করেন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর চিলিস পার্টি জোনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে সমিতির নেতারা এ অভিযোগ করেন।


সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান হোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ আহম্মেদ খান। উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক জিয়াউল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান দুলাল, শামিম সুইটসের পরিচালক মঞ্জুর রহমান, চিলিসের পরিচালক মাসুদুর রহমান রিংকু প্রমুখ।


হোটেল মালিকরা বলেন, রাজশাহী মহানগরীসহ দেশে ভেজালবিরোধী অভিযান হচ্ছে। তাঁরা এ অভিযানকে স্বাগত জানান। কিন্তু ব্যবসায়ীদের যেন হয়রানি না করা হয় সে ব্যাপারে প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে হবে।

হোটেল মালিকদের অভিযোগ, ব্যবসায়ীদের হয়রানি না করতে প্রশাসনকে বলা হলেও প্রশাসন তাঁদের কথায় কান দেয়নি। উল্টো ব্যবসায়ীদের হয়রানি ও জুলুম করা হচ্ছে। তাঁরা বলছেন, কোনো প্রকার বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই একটি খাবারকে পচা-বাসি বলা যায় না। শুধু চোখের দেখায় এটা অনুমান করা সম্ভব নয়। তাঁরা বলছেন, জরিমানার কারণ জানতে চাইলে সেই জরিমানার পরিমাণ দ্বিগুণ করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে নেতারা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, এ ধরনের হয়রানি বন্ধ না হলে বাংলাদেশে হোটেল মালিক সমিতি কঠোর আন্দোলনে নামবে। চিলিসের পরিচালক মাসুদুর রহমান রিংকু বলেন, কোনো কিছু না পেলেও সামান্য অজুহাতে বড় অঙ্কের জরিমানা করছে।

পাতাটি ২৯২ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন