logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এখনও নানান ভাবে ষঢ়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছেঃ লিটন
রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম. খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বর্তমান সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বাধা দানের লক্ষ্যে স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এখনও নানান ভাবে ষঢ়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশের আপামর জনগনের প্রতিরোধের মুখে পরাজিত হলেও ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে দেশের স্বাধীনতায় প্রথম কুঠারাঘাত করে। সে সময় থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত দেশি-বিদেশী ষড়যন্ত্রকারীরা বাংলাদেশের অগ্রগতির পথকে অবরুদ্ধ করে দেয়। এর পরেও দেশের মানুষ আশার আলো দেখলেও তৎকালিন সরকার কোন প্রত্যাশা পুরণ করতে পারেনি। যার কারনে অনেক স্বপ্নে গড়া এ দেশ উন্নয়নের ক্ষেত্র থেকে পিছিয়ে থাকে। ১৯৯৬ সালে দেশের জনগণ আওয়ামীলীগকে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব দেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেবার জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহন করেন। ফলে বাংলাদেশ এগিয়ে যেতে শুরু করে। কিনু্ত সেই ধারাবাহিকতা যেন না থাকে সে জন্য আবারো ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতার বাইরে রাখা হয় আওয়ামীলীগকে। এর পর দেশে কি হয়েছে তা সকলের জানা।

আজ দুপুরে নগরীর ভূবন মোহন পার্কে আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট আয়োজিত চেঞ্জমেকার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন প্রথমবার ক্ষমতায় এসেছিলেন তখনই নারীদের উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছিলেন। যার অনেকাংশই তখনই শুরু হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী সরকার তাঁর সুষ্ঠু বাস্তবায়নে বাধা সৃষ্টি করে। সেই সময় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের পিতার নামের পাশাপাাশি মায়ের নাম সম্পৃক্ত করার কার্যক্রম শুরু হয়। যা ছিল প্রশংসনীয় পদক্ষেপ। নারীদের উন্নয়নে এই সরকার আগামীতেও এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে সরকারের পাশাপাশি সমাজের মানুষকেও সচেতন হতে হবে। আর এ কাজটি মুলত বেসরকারি সংস্থাগুলো চালিয়ে যেতে পারে। তবেই দেশের নারী নির্যাতন কমবে। এখনও অনেক পরিবারে নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। এসকল পরিবারের কর্তারা চাননা মেয়েরা নিজেদের একটি অবস্থান তৈরী করে নিজ দেশে মাথা উঁচু করে থাক। এ অবস্থার পরিবর্তন আনতে হবে। তবেই নারীরা তাদের অধিকার ফিরে পাবে।

আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট পাবনার চেয়ারপার্সন অধ্যক্ষ আব্দুল মতীন খান এর সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট এর চেয়ারম্যান সুলতানা কামাল। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অক্সফ্যাম জিবি ভারপ্রাপ্ত রেজিষ্টার কান্ট্রি ডিরেক্টর এমবি আখতার, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি হাসান মিল্লাত। আরও বক্তব্য রাখেন, নাটোর সংস্থার সদস্য এ্যাড. রশিদুজ্জামান সাদি, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আহ্বায়ক রফিক হাসান বাবলু, চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রয়াস এর প্রেসিডেন্ট আবুল কালাম আজাদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের চেঞ্জমেকার জমিলা বেগম প্রমুখ।

পাতাটি ২৬৮ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন