logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রাজশাহীর পুঠিয়ায় বাস-টেম্পোর সংঘর্ষে নিহত ৩, আহত ৫
রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বিড়ালদহ মাজারের কাছে আজ শুক্রবার বাস ও টেম্পোর মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।
নিহতরা হলেন দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা গ্রামের আব্দুল কাদেরের স্ত্রী হাওয়া বেগম (৪৬), হাসেম আলীর মেয়ে রিতা (২৫) ও মুক্তার আলীর স্ত্রী ফজিলা খাতুন। তাঁরা একটি টেম্পোতে করে পুঠিয়ার বিড়ালদহ মাজারে যাচ্ছিলেন। তাঁদের মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর ফজিলা খাতুন এবং ঘটনাস্থলেই অপর দুজনের মৃত্যু হয়।
পুঠিয়ার বানেশ্বর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রাশিদ জানান, দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা গ্রাম থেকে আটজন নারী-পুরুষ দুপুর সোয়া ১২টার দিকে একটি টেম্পোতে করে বিড়ালদহ মাজারে যাচ্ছিলেন। মাজারের কাছে নাটোর থেকে রাজশাহীগামী একটি যাত্রীবাহী বাস টেম্পোটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন টেম্পোযাত্রী নিহত এবং অপর পাঁচজন আহত হন। আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফজিলাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। অন্যদের স্থানীয় ফার্মেসিতে প্রাথমিক চিকিত্সা দেওয়ার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হামিদ জানান, ঘটনাস্থলে নিহতদের ব্যাপারে পুঠিয়া থানায় দুর্ঘটনাজনিত মামলা হবে। তাঁরা ঘাতক বাসটিকে আটক করেছেন।

পাতাটি ৩৬১ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন