logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo নওগাঁয় মাত্র ছয় টাকা নিয়ে বিবাদ মেটাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে এক ব্যক্তির মৃত্যু
নওগাঁর সাপাহারে মাত্র ছয় টাকা নিয়ে বিবাদ মেটাতে গিয়ে একপক্ষের লাঠির আঘাতে ফজলুর রহমান (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার প্রত্যনত্ম পলস্নী রোদগ্রামে।

জানা গেছে, উপজেলার রোদগ্রামের সোহরাব আলী নামের এক ব্যক্তি তার মালিকাধীন চালকলে ধান ভাঙ্গানোর মূল্য বাবদ পার্শ্ববর্তী পোরশা উপজেলার কোচপুর গ্রামের জনৈক বুলবুলের কাছে ছয় টাকা পাওনা ছিল। বুলবুল দীর্ঘদিন ধরে সে টাকা পরিশোধ না করে সোহরাব আলীর সঙ্গে দেখা করা থেকে বিরত থাকেন। এ অবস্থায় গত শুক্রবার বিকালে বুলবুুলকে হাতের নাগালে পেয়ে সোহরাব আলী বুলবুলকে তার মিল ঘরে বেঁধে রাখেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বুলবুলের গ্রামবাসী ফজলুর রহমান ও তার ছেলে শরিফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে বুলবুলকে বেঁধে রাখার কারণ জিজ্ঞাসা করেন। এতে সোহরাব ও তার ভাইয়রা বুলবুলকে ছেড়ে দিয়ে ফজলুর রহমানের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের একপর্যায়ে সোহরাব পক্ষের লোকের লাঠির আঘাতে ফজলুর রহমানের মাথা ফেটে যায়। তাকে সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওই দিনই সন্ধ্যায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ১৬ জানুয়ারি রাতে তার মৃত্যু ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ৭ জনকে আসামি করে সাপাহার থানায় হত্যামামলা দায়ের করেন। পুলিশ ওইদিন সন্ধ্যায় সোহরাব ও তার ভাই আব্দুর নুরকে গ্রেফতার করে।

পাতাটি ২৮২ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন