logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রাবি ক্যাম্পাসের ঐতিহ্য প্যারিস রোড
প্যারিস রোড। নাম শুনলেই মনে হয় ফ্রান্সের কোনো একটি রাস্তা। রাস্তাটির ছবি দেখলে তা-ই মনে হবে। কিন্তু না, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেট থেকে শের-ই-বাংলা হল পর্যন্ত যে রাস্তাটি চলমান, সেটিই মূলত প্যারিস রোড নামে পরিচিত।
চোখধাঁধানো গগণচুম্বী সিড়ি গাছ দিয়ে ঘেরা এই রাস্তাটি। পিচ ঢালা রাস্তার দুই পাশে অতন্দ্র প্রহরীর মতো দাঁড়িয়ে থাকা গাছগুলো শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে নি, আকৃষ্ট করেছে প্রকৃতি প্রেমী হাজারো মানুষকে। সকাল গড়িয়ে দুপুর, দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা এমনকি রাতের অন্ধকারেও এ রাস্তায় রয়েছে শিক্ষক, শিক্ষার্থী আর সাধারণ মানুষের নীরব পদচারণা। সেইসঙ্গে শিক্ষার্থী আর বিনোদন পিয়াসীদের সবসময়ই চলতে থাকে গান, গল্প আর আড্ডা। এছাড়াও রয়েছে ক্যামেরা বন্দি হয়ে ছবি তোলার হিড়িক।
জানা যায়, ১৯৬৫ সালের দিকে তৎকালীন উপাচার্য প্রফেসর এম শামসুল হক ফিলিপাইন থেকে কিছু নিয়ে আসেন। ক্যাম্পাসের সৌন্দর্যবৃদ্ধির জন্য এগুলো রোপণের দায়িত্ব দেন উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানকে। তিনি এই রাস্তটি বেছে নেন এবং রাস্তার দুই পাশে গাছগুলো লাগিয়ে দেন। গাছগুলোর উচ্চতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে এর সৌন্দর্য। প্রকৃতির অপরূপ শোভায় শোভিত হতে থাকে রাস্তাটি। এক সময় পরিচিতি পায় দেশের একটি দর্শনীয় স্থান হিসেবে।
রাস্তাটির নাম প্যারিস রোড হলো কেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক নাসির উদ্দিন বলেন, ‘রোডটির নাম প্যারিস রোড ছিল না। আমরা জানি, তৎকালে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক নাদিরুজ্জামান ক্যাম্পাসের সৌন্দর্যবৃদ্ধির দায়িত্বে ছিলেন। তার নেতৃত্বে গাছগুলো লাগানো হয়, যা এখন অনেক বড় মহিরুহে পরিণত হয়েছে। রাস্তাটির সঙ্গে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের রাস্তাগুলোর অনেকটা মিল আছে। তাই শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এটিকে প্যারিস রোড বলতে বলতে রাস্তাটি এক পর্যায়ে প্যারিস রোড নামে পরিচিত হয়ে উঠেছে’।
রাস্তাটিতে হাঁটতে থাকা গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী লাবীব, আদিব ও জাফর জানান, ‘প্যারিস রোড একটি দৃষ্টিনন্দন রাস্তা। রাস্তাটিতে হাঁটতে খুবই ভালো লাগে, প্রিয়জনের সঙ্গে হাঁটলে তা আরো অনেক আনন্দের হয়’।
প্যারিস রোডকে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী শরিফুজ্জামান। তিনি বলেন, ‘রাবি ক্যাম্পাসের দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে প্যারিস রোড আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গা। প্রতিদিন সন্ধ্যায় রাস্তাটিতে হাঁটি। এক অসাধারণ মুহূর্ত শেয়ার করি প্রকৃতির সঙ্গে।’
সবুজ বাংলাদেশের বুক চিরে জন্ম নিয়েছে হাজারো প্রজাতির গাছ, শোভিত করেছে অনেক রাস্তাকে। বাহারি ডালে সজ্জিত কচি পাতার গগণচুম্বী সিড়ি গাছগুলো প্যারিস রোডটিকে দিয়েছে আলাদা একটি উজ্জ্বলতা। তাইতো রাবি শিক্ষার্থীদের গর্ব আর দাবি, দেশের আর কোনো বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এমন সুউচ্চ গাছের বিন্যাস এবং রাস্তার সৌন্দর্য নেই।

পাতাটি ৪৬৬ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন