logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo ঢাকা চলো কর্মসূচী সফল করতে মরিয়া রাজশাহী ৪ জোট নেতৃবৃন্দ
আগমী ১২ মার্চ বিএনপি আহূত ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি সফল করতে বিএনপি, জামায়াতে ইসলামী ও সমমনা দলগুলো ব্যাপক প্রস্ত্ততি নিয়েছে। কর্মসূচি সফল করতে দলগুলো এক মাস ধরে জেলায় ব্যাপক তৎপরতা চালিয়ে আসছে। ঢাকার মহাসমাবেশে এ অঞ্চল থেকে লাখো মানুষের ঢল নামাতে সর্বত্র গণজাগরণ সৃষ্টি করতে দলের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা দিনরাত গণসংযোগ ও সভা-সমাবেশ চালিয়ে যাচ্ছেন।
মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে শুধু রাজশাহী নগর নয়, থানা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড এমনকি প্রত্যন্ত গ্রামে বিএনপি-জামায়াতের প্রচারণা অব্যাহত আছে। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মিজানুর রহমান মিনু এ কর্মসূচি সফল করতে রাজশাহী বিভাগের প্রতিটি জেলার তৃণমূলে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে জেলা শাখার পক্ষ থেকে আলাদা প্রস্ত্ততি নিয়েছেন দলটির নেতৃবৃন্দ। নিজ দলের পক্ষে উপস্থিতি বাড়াতে দিনভর শেষ মুহুর্তের প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন জেলা বিএনপির সভাপতি নাদিম মোসত্মফা। দলের শীর্ষ ও স্থানীয় নেতাদের উপস্থিতিতে সকল কোন্দল ও ভেদাভেদ ভুলে চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন রাজশাহীর তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। অপরদিকে নিজেদের দল ভারি করতে সকল প্রস্ত্ততি সম্পন্ন করেছে চারদলীয় জোটের প্রধান শরিক দল জামায়াতে ইসলামী। এ উপলক্ষে রাজশাহী অঞ্চলের সর্বত্রই যেন বইছে উৎসবের আমেজ।

বিএনপি দলীয় সূত্রে জানা যায়, সরকারি দল এবং প্রশাসনের বাধা ও হামলা-নির্যাতনের আশঙ্কা মাথায় নিয়েই রাজশাহী থেকে রওনা হবেন নেতা-কর্মীরা। মহাসমাবেশে যথাসময়ে পৌঁছাতে ইতিমধ্যেই রাজশাহী ছাড়তে শুরু করেছেন অনেক নেতা-কর্মী। ঢাকায় হোটেলে থাকতে প্রশাসন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলে তাঁরা আশ্রয় নেবেন আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও সমর্থকদের বাসায়-মেসে। সূত্র আরও জানায়, রাজশাহী থেকে বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোর ১৫ থেকে ২০ হাজার নেতা-কর্মী মহাসমাবেশে যোগ দেবেন। এছাড়া জামায়াতে ইসলামী ও এর অঙ্গসংগঠনগুলোর হাজার পাঁচেক নেতা-কর্মী মহাসমাবেশে যোগ দেওয়ার প্রস্ত্ততি নিয়েছেন।
এদিকে ঢাকা চলো কর্মসূচীকে সফল করতে ওয়ার্ড থেকে শুরু করে জেলাপর্যায়ে চালানো হচ্ছে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা। তৃণমূল কর্মী-সমর্থকেরা দলের মূলশক্তি। তাই নেতারা এখন ছুটছেন তাদের দ্বারে দ্বারে। কর্মসূচি সফল করতে দলের পক্ষ থেকে আয়োজন করা হচ্ছে ব্যাপক সভা-সমাবেশের। পোস্টার আর ব্যানারে ছেয়ে গেছে সর্বত্র। ঢাকায় ব্যাপক উপস্থিতি ঘটাতে ইতোমধ্যেই ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন পরিবহন ভাড়া করতে। দেশের পশ্চিমাঞ্চলে নেতাকর্মীদের চাহিদার তুলনায় পরিবহন ঘাটতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। তারপরও নেতাকর্মীরা বলছেন, প্রয়োজন হলে হেঁটে হলেও তারা কর্মসূচি সফল করতে ঢাকায় যাবেন। বিএনপি নেতারা বলছেন, ১২ মার্চকে ঘিরে সর্বত্র যে গণজাগরণ সৃষ্টি হয়েছে তাতে করে রাজধানীজুড়ে জনতার ঢল নামবে।

এদিকে আগামী ১২ মার্চ চারদলীয় জোটের ঢাকা চলো কর্মসূচি বানচাল করতে রাজশাহীতে পুলিশ ধরপাকড় শুরু করেছে বলে অভিযোগ করেছেন জামায়াত ও বিএনপি নেতৃবৃন্দ। গত দুই দিনে রাজশাহীতে পুলিশ ৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে মাদকসহ নিয়মিত মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মহানগরীতে ৪৪ জন এবং জেলায় ১১ জন। এছাড়া প্রতিনিয়তই রাজশাহী মহানগরী ও জেলার বিভিন্ন উপজেলায় নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি পুলিশ হানা দিচ্ছে। পুলিশের অব্যাহত অভিযানের কারণে নেতাকর্মীরা বাড়িতে রাত যাপন করতে পারছেন না, এমন অভিযোগ নেতাকর্মীদের। এমনকি জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কোন মামলা ও অভিযোগ না থাকলেও তাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে জামায়াত নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন।
রাজশাহী মহানগর জামায়াতের আমীর আতাউর রহমান বলেন, চারদলীয় জোটের ঢাকা চলো কর্মসূচি বানচাল করতে সরকার পুলিশ বাহিনী দিয়ে নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে। এছাড়া যাতায়াতের জন্য যেসব যানবাহন ঠিক করা হচ্ছে তাতেও নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা হচ্ছে। তবে যত বাধাই আসুক না কেন আমরা আগামী ১২ মার্চের কর্মসূচী সফল করবোই।

অন্যদিকে আগামী ১২ মার্চ বিএনপির ঢাকা চলো কর্মসূচী সফল করতে মাঠে নামেনি চারদলীয় জোটের অন্যতম শরিকদল ইসলামী ঐক্য জোট। কেন্দ্র থেকেও এ কর্মসূচী সফল করতে কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলেও জানিয়েছেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। রাজশাহী ইসলামী ঐক্য জোটের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা আব্দুস সামাদ বলেন, এ কর্মসূচী সফল করতে কেন্দ্র থেকে কোন নির্দেশ দেয়া হয়নি। তাই ঢাকার মহাসমাবেশে যাবার কোন পরিকল্পনা বা কর্মসূচী নেই।
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গত ১০ জানুয়ারি লংমার্চ শেষে চট্টগ্রামের বিশাল মহাসমাবেশে ১২ মার্চ ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি ঘোষণা দেন। কর্মসূচি সফল করতে সেই থেকেই বিএনপির হাইকমান্ড থেকে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছে। সারাদেশের মতো রাজশাহীতেও ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি সফল করতে নেতাকর্মীরা মরিয়া হয়ে উঠেছেন।

পাতাটি ২৬০ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন