logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo দিনভর দূর্ভোগের পর প্রত্যাহার হলো অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট
দিনভর দুর্যোগের পর রাজশাহী-নাটোর বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হলো সোমবার রাতে। নগর ভবনে মেয়র এ এইচ এম খায়র্বজ্জামান লিটন মালিক ও শ্রমিক এসোসিয়েশনের নেতাদের সঙ্গে এক ফলপ্রসু বৈঠক করেন। এর পরই মালিক ও শ্রমিক নেতারা ধর্মঘট প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেন। রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্র্বপের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুর হোসেন পিটার ধর্মঘট প্রত্যাহারের খবর সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন।
নগরীর ভদ্রা এলাকায় স’ানীয়রা বাস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটালে গত রোববার সন্ধ্যা থেকে রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্র্বপ রাজশাহী-নাটোর অনির্দিষ্ট-কালের ধর্মঘটের ডাক দেয়। এর আগে গত বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত হর্ণ বাজানোকে কেন্দ্র করে এই এলাকায় বাস শ্রমিকদের সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়। এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে আন্তনগর বাস টার্মিনালের চেইন মাস্টার আসাদুজ্জামান বাদি হয়ে ভদ্রা এলাকার সাত ব্যক্তিকে আসামি করে একটি মামলা করেন। এই ৰোভে এলাকাবাসী রোবার বাসে আগুন দেয় এবং আরও একটি বাস ভাংচুর করে।
ধর্মঘটের পক্ষে মালিক ও শ্রমিকরা সকালে বিক্ষোভ করে টার্মিনাল এলাকায়। রাজশাহী থেকে কোনো বাস মিনিবাস ছেড়ে যেতে দেয়া হয়নি। অন্যজেলা থেকেও রাজশা-হীতে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি কোনো বাস মিনি বাস। দসকালে টার্মিনাল এলাকায় শ্রমিক ও মালিক নেতারা এক সমাবেশে ঘোষণা দেন, বাস শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, ৰতিগ্রস্ত বাস মালিকদের ক্ষতিপূরণ এবং দোষীদের গ্রেপ্তার না করা হয়, তবে উত্তরাঞ্চলের সব জেলা দর্মঘটের ডাক দেয়া হবে।
এ দিকে ধর্মঘটের কারণে দিনভর দুভোর্গে পড়তে হয় যাত্রীদের। সকালে ট্রেন থেকে নেমে যাত্রীরা সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েন। তাদের অনেকেই জানতেন না যে রাজশাহীতে বাস ধর্মঘট চলছে। ট্রেন থেকে নেমে অনেক যাত্রী চাঁপাই নবাবগঞ্জ ও নওগাঁয় যাদের গন্তব্য ছিল তারা ধর্মঘটের কারণে দূভোর্গে পড়েন। এছাড়া নওগাঁ থেকে সকালে দুইটি বাস যাত্রী নিয়ে রাজশাহী শহরে আসলে তারাও নির্ধারিত গন্তব্যে যেতে পারেনি। দুরপাল্লার বাসের অনেক যাত্রী যারা আগের দিন টিটিক কেটে রেখেছিলেন। সকালে বাস কাউন্টারে এসে জানতে পারেন যে বাস বন্ধ। অনেকে টিকেটের অর্থও ফেরত পায়ন বলে অভিযোগ রয়েছে। বাস কাউন্টারগুলো থেকে তাদের বলা হয়েছে, যেদিন বাস চলবে সেদিন কাউন্টার থেকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে।
বোয়ালিয়া থানা পুলিশ জানায়, রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাস পুড়িয়ে দেওয়া এবং ভাংচুরের ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেননি। তবে পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

পাতাটি ২৩১ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন