logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo ২০১৪ সালের মধ্যে কম্পিউটারাইজড হচ্ছে রাকাবের সব শাখা
২০১৪ সালের মধ্যে সম্পূর্ণ কম্পিউটারাইজড ব্যাংক হিসেবে সব কার্যক্রম চালাতে পারবে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব)। এ লক্ষ্যে পাঁচবছর মেয়াদি আইসিটি পরিকল্পনা (২০০৯-২০১০ হতে ২০১৩-২০১৪) বাস্তবায়নে কাজ করছে রাকাব। এর ফলে আগামীতে অনলাইন ব্যাংকিং, এসএমএস ব্যাংকিং এবং পাঁচটি বৃহত্তর জেলা শহরে এটিএম বুথ স্থাপনসহ আধুনিক ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্ভব হবে। গতকাল মঙ্গলবার রাকাব রাজশাহী শাখার কম্পিউটারাইজেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রদীপ কুমার দত্ত।
প্রদীপ কুমার দত্ত বলেন, বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তির যুগে ব্যাংকিং ব্যবসায় লেনদেন ও অভ্যন্তরীণ হিসাব-নিকাশ অপেক্ষাকৃত কম লোকবলের সাহায্যে দ্রুত সম্পাদন এবং উন্নতসেবা দিতে ব্যাংকের শাখাগুলোতে পর্যায়ক্রমে কম্পিউটারাইজেশন করা হচ্ছে। ব্যাংকের সার্বিক কার্যক্রম কম্পিউটারাইজেশনের লক্ষ্যে গৃহিত পাঁচবছর মেয়াদি আইসিটি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে ২০০৯-২০১০ অর্থ বছরে ঢাকাসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের ৫২টি শাখা কম্পিউটারাইজেশনের আওতায় আনা হয়েছে। এর মধ্যে আজকে উদ্বোধনকৃত রাজশাহী শাখাসহ এ পর্যন্ত ৩০টি শাখা সম্পূর্ণরূপে কম্পিউটারাইজড শাখা হিসেবে কাজ করছে। ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে ৫২টি শাখাকে সম্পূর্ণরূপে কম্পিউটারাইজড করা সম্ভবপর হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
তিনি জানান, দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০১০-২০১১ অর্থবছরে ৭৭টি শাখাকে কম্পিউটারাইজেশনের আওতায় আনা হয়েছে এবং আগামী মে মাসের মধ্যে মোট ১২৯টি শাখা সম্পূর্ণরূপে কম্পিউটারাইজড শাখা হিসেবে পরিচালিত হবে। তৃতীয় পর্যায়ে ২০১১-২০১২ অর্থবছরে ৮৪টি শাখাকে কম্পিউটারাইজেশনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে এবং আগামী জুন মাসের মধ্যে শাখাগুলো সম্পূর্ণরূপে কম্পিউটারাইজড শাখা হিসেবে কাজ শুরু করতে পারবে। এছাড়া চতুর্থ ও পঞ্চম পর্যায়ে ২০১২-২০১৩ ও ২০১৩-২০১৪ অর্থবছরের মধ্যে অবশিষ্ট ১৫৪টি শাখাসহ ব্যাংকের মোট ৩৬৭টি শাখা সম্পূর্ণরূপে কম্পিউটারাইজড শাখা হিসেবে কাজ শুরু করতে পারবে বলে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ব্যাংকের ভাবমূর্তি উন্নয়নের লক্ষ্যে গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা প্রদানের জন্য তিনি শাখার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।
রাকাব রাজশাহী জোনের জোনাল ব্যবস্থাপক সাজাম্মুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাকাব বিভাগীয় কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক আবদুল খালেক খান এবং প্রধান কার্যালয়ের কম্পিউটার বিভাগের উপমহাব্যবস্থাপক খোন্দকার গোলাম মোস্তফা। অনুষ্ঠানের শেষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাখার একজন আমানতকারীর চেকের অর্থ প্রদানের মাধ্যমে কম্পিউটারাইজেশন কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন।

পাতাটি ২২৬ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন