logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo মেয়র লিটনের পদত্যাগের দাবীতে গৃহহীনদের মানববন্ধন অব্যাহত রয়ছে
বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের কাছ থেকে লিজ না নিয়েই রাজশাহী মহানগরীর বহরমপুর থেকে কোর্ট স্টেশন এলাকার বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সবুজায়ন বিনোদন স্পটের নামে প্রায় ৩ হাজার মানুষকে গৃহহারা করে। গৃহহীন ওইসব বস্তিবাসী গত কয়েকদিন ধরে নগরীর বিভিন্ন স্থানে তাদের পুর্নবাসনের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে আসছে।

চলতি এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে বস্তি খালি করার জন্য অনুরোধ জানায়। কিন্তু অন্য কোথাও যাওয়ার জায়গা না থাকায় মাথা গোঁজার শেষ স্থানটুকু আকড়ে ধরার চেষ্টা করে বস্তিবাসী । এরপর হঠাৎ করে গত ১৯ এপ্রিল সকাল থেকে রাসিকের ম্যাজিষ্ট্রেট সাদেকুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ ও ভাড়াটে শ্রমিক ওই বস্তি ভাঙ্গা শুরু করে। অসহায় বস্তিবসীর আহাজরী ও অশ্র“ মন গলাতে পারেনি বস্তি ভাঙ্গতে আসা টিমের সদস্যদের। এক পর্যায়ে বস্তিবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। অথচ যে জন্য এতো ঘটনা সেই রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ওই বস্তি ভাঙ্গার আইনগত কোন এখতিয়ার নেই। কেননা গতকাল পর্যন্ত সিটি কর্পোরেশনকে বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল কর্তৃপক্ষ লিজ দেয়নি। এই লিজ না দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বয়ং পশ্চিমাঞ্চল রেলের জিএম আমজাদ হোসেন।

শুক্রবার রাতে রেলের জিএম আমজাদ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান এখনো পর্যন্ত সিটি কর্পোরেশন কেন কোন প্রতিষ্ঠানকেই লিজ দেয়া হয়নি। কোন প্রতিষ্ঠানকে লিজ দিলেও নিয়মানুযায়ী এক বছরের বেশী দিতে পারবেন না। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজাহার আলী গতকাল রাতে এ প্রতিবেদকের কাছে এখনো লিজ না পাওয়ার কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, লিজ নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। এদিকে গত ১৯ এপ্রিল বস্তি উচ্ছেদ কার্যক্রমকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনার জন্য আগামী ২৭ এপ্রিল বিশেষ সাধারণ সভার আহবান করেছেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। গত ২০ এপ্রিল মেয়রের স্বাক্ষরিত এক নোটিশে কাউন্সিলরদের বিশেষ সাধারণ সভায় উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। আর এতেই প্রশ্ন উঠেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন কি তাহলে গত সাধারণ সভায় কাউন্সিলরদের মতামত না নিয়েই হঠকরি ভাবে সিটি বাইপাস সংলগ্ন টুলটুলিপাড়ার বস্তি উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয়।

এদিকে গত কয়েক দিন ধরে গৃহহারা বস্তিবাসীরা তাদের পুনর্বাসনের দাবীতে নগরীর কোর্ট টুলটুলি পাড়া, লক্ষ্মীপুর মোড় এবং গতকাল নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন কর্মমূচি পালন করে। রাসিকের কাউন্সিলর ফারজানা হকের নেতৃত্বে ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসী এই মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের পদত্যাগ দাবী করা হয়। আরো বলা হয়, নগরীর বস্তিবাসীদের যখন দু মুঠো ভাত-কাপড়ের জন্য সংগ্রাম করতে হচ্ছে তখন তাদের গৃহহীন করা মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা ছাড়া আর কিছুই নয়। মানববন্ধন থেকে আরো বলা হয় কাউকে গৃহহীন করে বিত্তবানদের জন্য বিনোদন পার্ক করা কতটা যক্তিযুক্ত তা বিবেকবান মানুষের ভেবে দেখা উচিত।




সুত্র: নতুন প্রভাত

পাতাটি ২৯২ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন