logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo বিজয়ের মাস ডিসেম্বর / গোনাই ও গোায়ালপাড়ায় অগ্নিসংযোগ করেছিলো পাকবাহিনী
১৯৭১ সালের জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে গোদাগাড়ীর গোনাই ও গোয়ালপাড়া গ্রামে অগ্নিসংযোগ করেছিলো পাক হানাদার বাহিনী। গ্রাম দুটি মুক্তিযোদ্ধাদের গোপন সেল্টার হিসেবে ব্যবহার হওয়ার কারণে ওই গ্রামে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছিলো। স্মৃতিচারণে মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান জানিয়েছেন এই কথা। তিনি বলেছেন গোদাগাড়ীর গোনাই ও গোয়ালপাড়া গ্রাম মুক্তিযোদ্ধাদের গোপন সেল্টার হিসেবে ব্যবহার হতো। এই তথ্যটি পাক হানাদার বাহিনীর কাছে ফাঁস হয়ে যায়। এছাড়াও ওস্তাদ হারুনের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি গ্রুপ শিতলাই রেল ব্রীজটি ধবংস করে দেয়ায় পাক হানাদার বাহিনী ওই দুটি গ্রামে আক্রমণ চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করে। এর ফলে গ্রাম গুটি জনশূন্য হয়ে পড়ে। সনধ্যা নামার পরপরই ওই দুটি গ্রামে আক্রমণের সংবাদ মুক্তিযোদ্ধারা জানতে পারেন। ওই সময় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা মুক্তিযোদ্ধাদের একত্রিত হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিকুর রহমান রাজা। তিনি দ্রুত গ্রাম ছেড়ে অন্য এক সেল্টারে চলে যাওয়ার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের নির্দেশ দেন। পূর্বেই আক্রমণের খবর পেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদেরকে গ্রাম ছেড়ে যাবার নির্দেশ দেয়ার অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই দুই দিক থেকে শুরু হয় আক্রমণ। মুক্তিযোদ্ধারা কোন রকমে পালপুর বিলের পাশ দিয়ে যাওয়া একটা একটা সরু রাস্তা দিয়ে মালিগাছি নামের এক গ্রামে গিয়ে আশ্রয় নেয়। পরের দিন পাকবাহিনী গ্রাম ছেড়ে শহরে চলে গেলে মুক্তিযোদ্ধারা পুনরায় ওই গ্রামে গিয়ে দেখেন গ্রামে কোন মানুষ নেই। গ্রামের যে বাড়িগুলোতে মুক্তিযোদ্ধাদের যাওয়া-আসা ছিলো সেই বাড়িগুলো একেবারে মাটির সাথে মিশিয়ে দেয়া হয়েছে। সূএ:সোনালী সংবাদ

পাতাটি ২৫৫ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন