logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo মতবিনিময় সভায় বক্তারা/ রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনকে ধূমপানমুক্ত করা হবে
রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনকে ধূমপানমুক্ত ঘোষণা করা হবে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রেলওয়ে রিক্রিয়েশন ক্লাবে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় এই কথা জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। “অধূমপায়ীদের ধূমপানের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষায় ধূমপানমুক্ত পাবলিক পরিবহন ও পাবলিক প্রেস প্রয়োজন” শীর্ষক এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এসিডি। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী দুলাল কুমার রায়। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন, সহকারী জেনারেল ম্যানেজার সুজিত কুমার বিশ্বাস। সভাপতিত্ব করেন, এসিডির কার্যনির্বাহী সদস্য শ্যামাপদ সান্যাল। মূল প্রবন্ধ উপস’াপন করেন, এসিডির প্রোগ্রাম অফিসার পারভেজ আহম্মেদ পাপেল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, এসিডির প্রোগ্রাম অফিসার শফিউল আওয়াল। মতবিনিময় সভায় বলা হয়, আমাদের দেশে পাবলিক পরিবহনে ৬৯ ভাগ পুরুষ এবং ২১ ভাগ নারী পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হন। কাজেই ধূমপায়ীদের হাত থেকে অধূমপায়ীদের রক্ষার জন্য পাবলিক পরিবহন ও পাবলিক প্রেস শতভাগ ধূমপানমুক্ত হওয়া জরুরি। বক্তারা বলেন, রাজশাহী রেল স্টেশন ধূমপানমুক্ত করার মত পরিবেশ বিদ্যমান। কাজেই একটু উদ্যোগ নিলেই এটা বাস্তবায়ন সম্ভব। তবে এক্ষেত্রে আইনের প্রয়োগটা জরুরি। আইনের সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমে শুধু রাজশাহী রেল স্টেশন নয়, ধীরে ধীরে দেশের সকল রেলওয়ে স্টেশনকে ধূমপানমুক্ত করা সম্ভব। সভায় এসিডির পক্ষ থেকে বলা হয়, তাদের আন্দোলন ধূমপায়ীদের বিরুদ্ধে না। বরং ধূমপায়ীদের দ্বারা অধূমপায়ীরা বিশেষ করে নারী ও শিশুরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় এই লক্ষ্যেই এসিডি পাবলিক পরিবহন ও পাবলিক প্রেসকে শতভাগ ধূমপানমুক্ত করার জন্য সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সিবিএ সভাপতি ও কেন্দ্রিয় নেতা ওয়ালী খান, সিবিএ নেতা মোতাহার হোসেন বুলু, সাংবাদিক মাহাতাব চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে এসিডির পক্ষ থেকে “ধূমপানমুক্ত এলাকা” সম্বলিত সাইনবোর্ড রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয়া হয়। সুএ:সোনালী সংবাদ

পাতাটি ২৪৯ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন