logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহ অগ্নিনির্বাপন ও উদ্ধার মহড়া অনুষ্ঠিত
ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার রাজশাহীতে পরিবেশিত হয়েছে অগ্নিনির্বাপন ও উদ্ধার মহড়া। রাজশাহী সদর ফায়ার স্টেশন চত্বরে এই মহড়া প্রদর্শনীতে অংশ নেন ফায়ার সার্ভিসের চৌকস অগ্নিনির্বাপক ও উদ্ধারকারী দল। এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম. খায়রুজ্জামান লিটন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন, রাজশাহী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো: এনামুল হক। এর আগে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি রাজশাহী নগরভবন চত্বর থেকে বের হয়। এই র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন সিটি মেয়র এ.এইচ.এম. খায়রুজ্জামান লিটন, রাজশাহী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো: এনামুল হক ও ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রাজশাহী বিভাগীয় উপ-পরিচালক শেখ মো: মিজানুর রহমান। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে রাজশাহী ফায়ার স্টেশন চত্বরে এসে শেষ হয়। এরপর সেখানে শুরু হয় অগ্নিনির্বাপনী ও উদ্ধার মহড়া। মহড়া পরিচালনা করেন, সহকারী পরিচালক শামসুজ্জোহা। বিপুল সংখ্যক দর্শক অগ্নিনির্বাপনী ও উদ্ধার সংক্রান্ত এই সচেতনতামূলক মহড়া উপভোগ করেন। এসময় অগ্নিনির্বাপন কার্যক্রম, অটোস্কেপ ও মই এর সাহায্যে এবং এয়ার জাম্পিং প্যাড এর সাহায্যে উদ্ধার, অত্যাধুনিক রেসফিউ টুল এর সাহায্যে উদ্ধার কার্যক্রম ইত্যাদি প্রদর্শন করা হয়।
ডিসপ্লেতে দেখানো হয় যে, কোন বাসা বাড়িতে চুলা থেকে আগুন লাগলে খুব সহজেই তাৎক্ষণিক কিভাবে আগুন নেভানো সম্ভব। এসময় বলা হয় গ্যাস ও চুলার কাছে এক বালতি পানি ও বস্তা রাখলে আগুন নেভানোর জন্য ফায়ার সার্ভিসকে ডাকার প্রয়োজন হবে না। ডিসপ্লেতে আরো দেখানো হয় যে, বিশেষ ধরনের জ্যাকেট পরে কিভাবে ফায়ার কর্মীরা সর্বোচ্চ ৫ মিনিট আগুনের মধ্যে অবস’ান করে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। শহরে কোথাও ট্যাংক লরি ও পেট্রোল পাম্পে আগুন লাগলে কিভাবে সেই আগুন নেভানো সম্ভব সেটাও প্রদর্শন করা হয়। আটকেপড়া মানুষকে উদ্ধারের অত্যাধুনক প্রক্রিয়াও প্রদর্শিত হয়। এসময় বলা হয়, রাজশাহীতে উদ্ধার কর্মীর সংখ্যা ২৫ জন। এরা যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলা করতে সক্ষম এবং ফায়ার সার্ভিস যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলায় মানুষের পাশে থাকবে। সিটি মেয়র তার বক্তব্য বলেন, এই ডিসপ্লে নগরবাসী দেখলে তারা নিজেদেরকে যে কোন দুর্যোগে নিরাপদ বোধ করবে। তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিসকে আরো উন্নত ও অত্যাধুনিক করার প্রক্রিয়া চলছে। পরে নগরীতে একটি মোটর শোভাযাত্রা বের হয় এবং সচেতনতামূলক স্লোগান প্রচার করা হয়।সুএ:সোনালী সংবাদ

পাতাটি ২৯১ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন