logo



আমার প্রিয় লেখা



আমার ছবিঘর



অনলাইনে আছেন

আব্দুল্লাহ-আল-নোমান এর নতুন বন্ধু নাজমুল


আমাদের সাথে আছেন ৭৯ জন অতিথী
  

এস.এম.সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারী এর অনলাইন ডায়েরী

মন ভালো নেই

ডায়েরী লিখছেন ৬ বছর ৬ মাস ১৪ দিন
মোট পোষ্ট ১টি, মন্তব্য করেছেন ১টি


বাঘায় সহকারি শিক্ষকদের সংবাদ সম্মেলন প্রধান শিক্ষকদের একধাপ নীচে বেতন প্রদানের দাবি

লিখেছেন : এস.এম.সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারী       তারিখ: ২৫-১২-২০১৩



ডাঃ সেলিম ভান্ডারী, বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ::
বেতন স্কেল বৈষম্যর কারনে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাঘা উপজেলার সহকারি শিক্ষকরা। প্রধান শিক্ষকের এক ধাপ নীচে বেতন স্কেল প্রদানের দাবিতে গতকাল বুধবার দুপুরে বাঘা প্রেস ক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন শিক্ষকরা।
লিখিত বক্তব্য পাঠকালে শিক্ষক আরিফুর রহমান বাবু বলেন,বিগত দিনে তাদের আন্দোলনে দাবি ছিল,প্রধান শিক্ষকদের ২য় শ্রেণীসহ তাদের বেতন স্কেলের একধাপ নীচে সহকারি শিক্ষকদের বেতন স্কেল প্রদানের। কিন্তু গত মাসের ২৩ নভেম্বর‘জন প্রশাসন মন্ত্রনালয়’হতে ‘প্রাথমিক গন শিক্ষা মন্ত্রনালয়’ এর সচিব মহোদয়কে যে পত্র পাঠানো হযেছে, তাতে প্রধান শিক্ষদের বেতন স্কেল হতে সহকারি শিক্ষকদের বেতন স্কেল তিন ধাপ নীচে নির্ধারন করা হয়েছে।
একই পত্রে প্রধান শিক্ষকদের বেতন উন্নীত করণের ক্ষেত্রে বর্তমানে বিদ্যমান বেতন স্কেল হতে দুই ধাপ উপরে উন্নীত করা হয়েছে। পক্ষান্তরে সহকারি শিক্ষকদের বেতন উন্নীত করণের ক্ষেত্রে বর্তমান বিদ্যমান বেতন স্কেল হতে এক ধাপ উন্নীত করা হয়েছে। যার ফলে প্রশিক্ষন বিহীন প্রধান শিক্ষকের বেতন স্কেল ৫৯০০-১৩১২৫ টাকা এবং প্রশিক্ষন প্রাপ্তদের বেতন স্কেল ৬৪০০-১৪,২৫৫ টাকার প্রস্তাব করা হয়েছে। অথচ সহকারি শিক্ষকদের প্রশিক্ষন বিহীন বেতন স্কেল-৪৯০০-১০৪৫০ টাকা এবং প্রশিক্ষন প্রাপ্ত বেতন স্কেল-৫২০০-১১২৩৫ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছ।
যা অযৌক্তিক,বৈষম্যমূলক ও চরম অমানবিক দাবি করে সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়,একজন প্রধান শিক্ষক যখন তিনটি টাইম স্কেল পাওয়ার পর ৮ম ধাপের শুরুতেই মূল বেতন পাবেন,১২০০০ টাকা এবং মাসে নীট বেতন পাবেন ২০,০৫০ টাকা। এ ক্ষেত্রে একজন সহকারি শিক্ষক তিনটি টাইম স্কেল পাওয়ার পর ১১তম ধাপে মূল বেতন পাবেন ৬,৪০০ টাকা এবং মাসে নীট বেতন হবে ১১,০৯০ টাকা। এ ক্ষেত্রে একজন প্রধান শিক্ষকের সাথে একজন সহকারি শিক্ষকের মূল বেতনের পার্থক্য হবে ৫,৬০০ টাকা এবং মাসে নীট বেতনের পার্থক্য হবে প্রায় ৯০০০ টাকা।
সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়, বৈষম্য কমিয়ে প্রধান শিক্ষকের এক ধাপ নীচে সহকারি শিক্ষকদের বেতন স্কেলসহ প্রধান শিক্ষকদের শতভাগ শূন্যপদে সহকারি শিক্ষকদের প্রমোশনের মাধ্যমে জেষ্ঠ্যতার ভিক্তিতে নিযোগ প্রদান। তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেওয় না হলে আগামীতে আন্দোলনের হুমকি দেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক আব্দুল হালিম মোল্লা,সহকারি শিক্ষক প্রতিনিধি কাবিল হোসেন ,সুনীত কুমার দেকনাথ,আতিকুর রহমান রেজা জালাল উদ্দীন ও হায়দার আলীসহ অর্ধ শতাধিক শিক্ষকরা। #

৮২৫ বার পঠিত

 
২৫-১২-২০১৩
এস.এম.সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারী বলেছেন: এভাবেই এগিয়ে যেতে হবে শিক্ষকদের।


মন্তব্য করতে লগিন করুন।
  

সাম্প্রতিক মন্তব্য



ছবিঘরের নতুন ছবি