logo



আমার লেখালেখি



আমার প্রিয় লেখা



আমার ছবিঘর



অনলাইনে আছেন

আব্দুল্লাহ-আল-নোমান এর নতুন বন্ধু নাজমুল


আমাদের সাথে আছেন ২ জন অতিথী
  

আনারুল এর অনলাইন ডায়েরী

এই জালিম দুনিয়ায় বেঁচে থাকা বড়ই দায় ।

ডায়েরী লিখছেন ৪ বছর ৪ মাস ১৭ দিন
মোট পোষ্ট ৫০টি, মন্তব্য করেছেন ৬টি


ধোনির ব্যাটিং-বীরত্বে ভারত চ্যাম্পিয়ন ধোনির ব্যাটিং-বীরত্বে ভারত চ্যাম্পিয়ন

লিখেছেন : আনারুল       তারিখ: ১২-০৭-২০১৩





বৃহস্পতিবার পোর্ট অব স্পেনের কুইন্স পার্ক ওভালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভুবনেশ্বর কুমারের তোপে ৪৯ রানে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে হারালেও কুমার সাঙ্গাকারা ও লাহিরু থিরিমান্নের দৃঢ়তায় ভালো সংগ্রহের পথে এগিয়ে যাচ্ছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু ১২২ রানের তৃতীয় উইকেট জুটি ভেঙ্গে যাওয়ার পর ধস নামে শ্রীলঙ্কানদের ইনিংসে।

৪৬ রান করা থিরিমান্নেকে বিদায় করে এই ধসের সূচনা করেন ইশান্ত শর্মা। দুই ওভার পর রবিচন্দ্রন অশ্বিনের মাধ্যমে শ্রীলঙ্কার জন্য আরো বড় আঘাত, ৭১ রান করে সাঙ্গাকারাও আউট!

ইশান্ত-অশ্বিনের সঙ্গে রবীন্দ্র জাদেজাও ধ্বংসযজ্ঞে মেতে উঠলে শুরু হয়ে যায় ব্যাটসম্যানদের যাওয়া-আসার মিছিল। তাই ৩০ রানে শেষ ৮ উইকেট হারিয়ে ২০১ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। ২৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কানদের সবচেয়ে বড় ‘ঘাতক’ জাদেজা।

জবাবে ২৭ রানে ২ উইকেট হারালেও দীনেশ কার্তিকের (২৩) সঙ্গে ৫০ ও সুরেশ রায়নার (৩২) সঙ্গে ৬২ রানের দুটো ভালো জুটি গড়ে ভারতকে জয়ের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা (৫৮)।

কিন্তু রঙ্গনা হেরাথের (৪/২০) ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হয়ে ১৩ রানের ব্যবধানে চার উইকেট হারিয়ে ১৫২/৭-এ পরিণত হয় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ১৫ রান যোগ হওয়ার পর আবার আঘাত, লাসিথ মালিঙ্গার ইয়র্কারে ভুবনেশ্বর এলবিডব্লিউ।

তবে তাতে দমে না গিয়ে বিনয় কুমারকে নিয়ে দলকে জয়ের পথে এগিয়ে নিচ্ছিলেন ধোনি। কিন্তু নবম উইকেট জুটিতেও ১৫ রানের বেশি হতে পারেনি। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস বিনয়কে ফিরিয়ে দিলে স্কোর দাঁড়ায় ১৮২/৯।

জয়ের জন্য তখন ভারতের প্রয়োজন ২২ বলে ২০ রান। শেষ ব্যাটসম্যান ইশান্ত শর্মাকে নিয়েই ধোনি দলকে এনে দেন অবিস্মরণীয় জয়। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৫ রান। শামিন্দা এরাঙ্গার করা প্রথম বলে রান নিতে পারেননি ধোনি। দ্বিতীয় বল মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দেন ভারত অধিনায়ক, ছক্কা! তৃতীয় বল পয়েন্টের ওপর দিয়ে চার। চতুর্থ বলে আবার ছক্কা মেরে ভারতকে আরেকটি অসাধারণ জয় এনে দেন ধোনি। তার ৫২ বলের অধিনায়কোচিত ইনিংসটিতে ছক্কা দুটি, চার ৫টি।পায়ের চোটের কারণে লিগ পর্বের প্রথম ম্যাচের পর খেলতে পারেননি। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিরে আরো একবার ভারতের জয়ের নায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অধিনায়কের অপরাজিত ৪৫ রানের সুবাদে শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে ১ উইকেটে হারিয়েছে ভারত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৪৮.৫ ওভারে ২০১/১০ (থারাঙ্গা ১১, জয়াবর্ধনে ২২, সাঙ্গাকারা ৭১, থিরিমান্নে ৪৬, ম্যাথিউস ১০, পেরেরা ২, চান্দিমাল ৫, হেরাথ ৫, এরাঙ্গা ৫, মালিঙ্গা ০, লাকমল ১; জাদেজা ৪/২৩, ভুবনেশ্বর ২/২৪, অশ্বিন ২/৪২, ইশান্ত ২/৪৫)

ভারত : ৪৯.৪ ওভারে ২০৩/৯ (রোহিত ৫৮, ধাওয়ান ১৬, কোহলি ২, কার্তিক ২৩, রায়না ৩২, ধোনি ৪৫*, জাদেজা ৫, অশ্বিন ০, ভুবনেশ্বর ০, বিনয় কুমার ৫, ইশান্ত ২*; হেরাথ ৪/২০, এরাঙ্গা ২/৫০, লাকমল ১/৩৩, ম্যাথিউস ১/৩৮, মালিঙ্গা ১/৫৮)

৪৮৫ বার পঠিত

 
মন্তব্য করতে লগিন করুন।
  

সাম্প্রতিক মন্তব্য



ছবিঘরের নতুন ছবি